Home » সবুজসাথী সাইকেল বিক্রির অভিযোগে গ্রেপ্তার প্রধান শিক্ষিকা ও ফেরিওয়ালা

সবুজসাথী সাইকেল বিক্রির অভিযোগে গ্রেপ্তার প্রধান শিক্ষিকা ও ফেরিওয়ালা

সময় কলকাতা ডেস্ক: স্কুলের ছাত্রছাত্রীদের যাতায়াতের সুবিধার জন্যসাইকেল থাক্তছাত্রীদের সাইকেল দিচ্ছে রাজ্য সরকার। সরকারের দেওয়া সাইকেল ছাত্রীদের না দিয়ে তা ফেরিওয়ালাকে বিক্রি করে দেওয়ার অভিযোগ শিক্ষিকার বিরুদ্ধে। উওর ২৪ পরগনার স্বরূপনগর থানার চারঘাট গার্লস স্কুলের এই ঘটনাকে কেন্দ্রকরে এলাকায় ব্যপক চাঞ্চল্য ছড়ায়।ঘটনার কছা জানাজানি হতেই পুলিস ফেরিওয়ালা ও শিক্ষিকাকে গ্রেপ্তার করেছে। ধৃতদের বুধবার বসিরহাট মহকুমা আদালতে তোলে পুলিশ। ঘটনা প্রসঙ্গে ফেরিওয়ালা জানান, ৩৭০ টাকা দামে প্রতিটি সাইকেল নেওয়ার জন্য স্কুলের প্রধান শিক্ষিকার সঙ্গে কথা হয়েছিল। সেইমতো টাকার বিনি্ময়ে তিনি সাইকেলগুলি কিনে নিয়ে য়াচ্ছিলেন।

মঙ্গলবার দুপুরে চারঘাট গার্লস স্কুল থেকে ৮,টি সবুজ সাথী সাইকেল একজন ভ্যানে করে নিয়ে যাচ্ছিলেন নজরুল মন্ডল। বিষয়টি নজরে আসার পরেই স্থানীয় বাসিন্দাদের সন্দেহ হয়। ভ‍্যানকে তাড়া করে আটক করে। চাককে আটকে রেখে জিজ্ঞাসাবাদ করলে, সে জানায় সাইকেল গুলো কিনে নিয়ে যাচ্ছে। তারপর ঐ ব্যক্তিকে চারঘাট পুলিশ ফাঁড়ির হাতে তুলে দেয়। পাশাপাশি স্কুলের প্রধান শিক্ষিকা রিঙ্কু দাস  ও ভ্যান চালক নজরুল মন্ডলের বিরুদ্ধে স্বরূপনগর থানায় অভিযোগ দায়ের করেন।সেই অভিযোগের ভিত্তিতে প্রধান শিক্ষিকা ও ভ্যানচালককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

 

যদিও ধরা পড়ার পরেও সাইকেল বিক্রির অভিযোগ অস্বীকার করেছেন চারঘাট গার্লস স্কুলের প্রধান শিক্ষিকা রিঙ্কু দাস। তাঁর দাবি, বেশ কয়েকবছর ধরে পড়ে থাকা সাইকেলগুলি ঘর খালি করার জন্য দুস্থ ছাত্রছাত্রীদের অভিভাবকের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে। টাকার বিনিময়ে কাউকে বিক্রিকরা হয়নি।

About Post Author